বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ১০:০৮ অপরাহ্ন

১৫ হাজার মসজিদ সৌরপ্রযুক্তিতে চলবে

১৫ হাজার মসজিদ সৌরপ্রযুক্তিতে চলবে

১৫ হাজার মসজিদ সৌরপ্রযুক্তিতে চলবে

মরক্কোর মোট জ্বালানির ৯৫ শতাংশ আসে বিদেশ থেকে। এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে নবায়নযোগ্য জ্বালানির দিকে ঝুঁকছে দেশটি। মরক্কো আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে ১৫ হাজার সরকারি মসজিদে নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহারের পরিকল্পনা করছে। কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। এই পরিকল্পনার আওতায় মসজিদগুলোতে জ্বালানি-সাশ্রয়ী বাতি, সৌরচালিত ওয়াটার হিটার ও সৌরপ্যানেল বসানো হবে।

একটি উদ্দেশ্য অবশ্যই পরিবেশ রক্ষা। সঙ্গে আছে খরচ কমানো এবং নাগরিকদেরও নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহারে উৎসাহিত করে তোলা। কারণ কোনো নাগরিক যখন দেখবেন এই জ্বালানি ব্যবহার লাভজনক, তখন তিনিও তা শুরু করবেন।

খরচ কমেছে ৮০ শতাংশ

এটি আস-সুন্না মসজিদ৷ রাজধানী রাবাতে অবস্থিত। ইতিমধ্যে সেখানে সোলার প্রযুক্তি বসানো হয়েছে। ফলে জ্বালানি খরচ কমেছে প্রায় ৮০ শতাংশ। ঐ মসজিদে সৌরপ্রযুক্তি বসাতে ব্যয় হয়েছে ৩০ হাজার ডলার। তবে এর ফলে জ্বালানি বাবদ খরচ প্রতি বছর কমবে ৭ হাজার ডলার করে।

 

 

পাওয়ার গ্রিডে সরবরাহ

সৌরপ্রযুক্তি ব্যবহার করে আস-সুন্না মসজিদে যে জ্বালানি উৎপাদিত হবে তার বাড়তি অংশ জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করা হবে।

২০৩০ সাল

২০৩০ সালের মধ্যে মরক্কোতে যে পরিমাণ বিদ্যুৎ প্রয়োজন হবে তার অর্ধেক নবায়নযোগ্য জ্বালানি থেকে পাওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে দেশটি। এই লক্ষ্য পূরণে সৌরশক্তিসহ অন্যান্য উৎস খুঁজে বের করতে অনেকদিন ধরে কাজ করছে মরক্কো।

 

 

চাকরির সুযোগ

লক্ষ্য পূরণে প্রতিবছর ৮ থেকে ১০ হাজার নাগরিককে ইলেকট্রিশিয়ান হিসেবে গড়ে তুলছে দেশটি। এছাড়া জ্বালানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তি তৈরি ও স্থাপনের মতো বিষয়গুলো কোর্স কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 BangaliTimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com