শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন

গায়ে দুর্গন্ধযুক্ত চাদর, পরনে ছেঁড়া লুঙ্গি … কাঁধের ঝোলায় মিললো চার লাখ টাকা!

গায়ে দুর্গন্ধযুক্ত চাদর, পরনে ছেঁড়া লুঙ্গি … কাঁধের ঝোলায় মিললো চার লাখ টাকা!

গায়ে দুর্গন্ধযুক্ত চাদর, পরনে ছেঁড়া লুঙ্গি ... কাঁধের ঝোলায় মিললো চার লাখ টাকা!

তার গায়ে ময়লা-দুর্গন্ধযুক্ত চাদর, পরনে ছেঁড়া লুঙ্গি, মুখভর্তি সাদা দাড়ি, মাথায় উশকো-খুশকো লম্বা চুল আর কাঁধে ঝোলানো ময়লা ও ছেঁড়া কাপড়ের ব্যাগ! তিনি ঘুরে ঘুরে ভিক্ষা করেন। লোকে তাকে পাগল বলে। তার কাঁধের সেই ছেঁড়া-ময়লা ব্যাগে মিললো প্রায় চার লাখ টাকা!

ঘটনাটি খুলনার খালিশপুরের। পাগলের কাঁধে ঝোলানো ময়লা ও ছেঁড়া কাপড়ের ব্যাগে পাওয়া যায় ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৭৪৯ টাকা। নগরীর দৌলতপুর বাজার, বিএল কলেজ, খালিশপুর পিপলস গোল চত্ত্বর এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে এই পাগলকে দেখা যায়।

বৃহস্পতিবার সকালে কৌতুহলবশত স্থানীয় কয়েকজন যুবক খালিশপুর মিল গেট এলাকায় তার ব্যাগ তল্লাশি করলে এই টাকা পাওয়া যায়। ভাঁজ ভাঁজ করে রাখা ৫শ টাকার নোটের কয়েকটি ব্যান্ডিল পাওয়া যায় তার ব্যাগের মধ্যে।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে পাগলকে ঘিরে ভিড় করে অসংখ্য মানুষ। ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে পুলিশ টাকাসহ ওই পাগলকে নিজেদের জিম্মায় নেয়।

কারো কাছে তিনি কখনো টাকা চান না। লোকজন খুশি হয়ে তাকে টাকা ও খাবার দিতো। প্রাথমিকভাবে তার নাম জেবাল হক বলে জানা গেছে।

খুলনার খালিশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরদার মোশরফ হোসেন বলেন, টাকার মালিক জেবাল হক পাগল নয়, তবে মস্তিষ্ক বিকৃত মানুষ। জিজ্ঞাসাবাদে নাম জেবাল হক বললেও বাড়ির ঠিকানা বলতে পারেনি। বেশি টাকা হলেই সে ১০০ ও ৫০০ টাকার নোট বানিয়ে ব্যাগের মধ্যে রাখতো।

তিনি বলেন, তার বিষয়ে সমাজ কল্যাণ অধিদফতরের সাথে কথা হয়েছে। তাদের তত্ত্বাবধায়নে সেখানে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এরইমধ্যে ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে। তবে ভাইরাল হওয়া ছবিটি প্রসঙ্গে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 BangaliTimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com