মঙ্গলবার, ১৬ Jul ২০১৯, ০১:১৭ অপরাহ্ন

বাবার সতর্কতায় বেঁচে গেল মেয়ের ইজ্জত

বাবার সতর্কতায় বেঁচে গেল মেয়ের ইজ্জত

বাবার সতর্কতায় বেঁচে গেল মেয়ের ইজ্জত

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় এবার পাঁচ বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে এক মাছ বিক্রেতা। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

রবিবার (৭ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে কতুবপুরের নুরবাগ এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। ধর্ষণ চেষ্টাকারীর নাম আরফান (৪৫)।

স্থানীয় সূত্র থেকে জানা গেছে, নূরবাগ এলাকার আরিফ খানের ভাড়াটিয়া মোহাম্মদ আলীর শিশু কন্যা বাড়ির পাশে খেলা করছিল। এ সময় একই এলাকার মনির হোসেনের ভাড়াটিয়া মাছ বিক্রেতা আরফান ওই শিশুকে বাড়ির পাশে একটি পরিত্যক্ত জমিতে নিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা করে। এ সময় ঘরের ভেতর থেকে জানালা দিয়ে ঘটনাটি দেখে ফেলে শিশুটির বাবা। পরে তাকে ধাওয়া দিয়ে ধরে ফেলে। তখন আশপাশের লোকজন ছুটে এসে গণধোলাই দিয়ে আরফানকে পুলিশে দেয়।

পরে রাত ৮টার দিকে ফতুল্লা থানার এসআই ইলিয়াস ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে লম্পট ইরফানকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ঘটনাস্থলে যাওয়া ফতুল্লা মডেল থানার এসআই ইলিয়াস শিশুটির বাবার বরাত দিয়ে বলেন, নুরবাগ এলাকার মনির মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত সোবহান মিয়ার ছেলে আরফান। সে ওই এলাকায় ফেরি করে মাছ বিক্রি করে। রবিবার সন্ধ্যার সময় পাশের বাড়ির এক শিশুকে আদর করে বাড়ির পেছনের পরিত্যক্ত জমিতে নিয়ে যায়। সেখানে জোর করে জামা খোলার সময় ঘরের ভেতর থেকে জানালা দিয়ে শিশুটির বাবা দেখে চিৎকার করে। তখন আশপাশের লোকজনও চারপাশ থেকে বেরিয়ে যায়। এসময় লম্পট আরফান দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করলে শিশুটির বাবা এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ধরে ফেলেন। এরপর এলাকাবাসী থানায় খবর দেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, আরফানকে আটক করা হয়েছে। বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এসব অপরাধ দমনে সকলকে সচেতন হতে হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 BangaliTimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com