শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:৫৭ অপরাহ্ন

কোহলিদের হারে উত্তাল ভারত, টিভি ভাঙচুরসহ আগুন দিল ছবিতে

কোহলিদের হারে উত্তাল ভারত, টিভি ভাঙচুরসহ আগুন দিল ছবিতে

কোহলিদের হারে উত্তাল ভারত, টিভি ভাঙচুরসহ আগুন দিল ছবিতে

অবশেষে কাঙ্ক্ষিত ফাইনালকে ছুঁতে পারল ক্রিকেটের আতুড়ঘরখ্যাত ইংল্যান্ড। ফাইনালে তাদের মুখোমুখি তাসমানিয়া সাগর পাড়ের দেশ নিউজিল্যান্ড।

বুধবার রিজার্ভ ডেতে প্রথম সেমিফাইনালে ট্রেন্ট বোল্টদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে সেমিতে বিশ্বকাপ মিশন শেষ হয় ভারতীয় দলের।

এবারের আসরে শুরু থেকেই ব্যাটিং-বোলিংয়ে তাণ্ডব চালিয়েছিলেন ম্যান ইন ব্লুরা। গ্রুপপর্বে মাত্র একটি ম্যাচে (ইংল্যান্ডের বিপক্ষে) হেরে যাওয়া ছাড়া বাকি সবই জয় ছিল তাদের।

ব্যাট হাতে অনবদ্য সব সেঞ্চুরি করে যাচ্ছিলেন দলটির ওপেনিং ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা। বল হাতে আগুন ঝরাচ্ছিলেন মোহাম্মদ সামি, বুমরাহরা।

সব মিলিয়ে দলটির সমর্থকরা ধরেই নিয়েছিলেন যে, বিশ্বকাপের শিরোপা এবার পেতে যাচ্ছেন বিরাট কোহলিরা। অথচ সেমি থেকেই ছিটকে গেলেন ধোনিরা। ম্যানচেস্টারে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ২৪০ রান তাড়া করতে নেমে ১৮ রানে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে গেলেন বিরাট কোহলিরা।

এমন হার মেনে নিতে পারছেন না দলটির সমর্থকরা। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে প্রকাশ, কোহলিদের হারের পরই ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যের সমর্থকরা ক্ষুব্ধ হয়ে রাস্তায় নেমে এসে মিছিল করেছেন।

নিজেদের ক্ষোভ ঝাড়তে তাদের অনেককেই কোহলি-ধোনিদের ছবিতে আগুন ধরিয়ে দিতে দেখা গেছে।

একদিন আগেও যেসব ক্রিকেটারের ছবি, ব্যানার মাথায় তুলে নেচেছেন তারা, একটি পরাজয়ের পরই সেসব ছবিকে পোড়াচ্ছেন।

ক্রিকেটকে নিয়ে যে উন্মাদনা রয়েছে ভারতে, তারই ভুরি ভুরি প্রমাণ মিলল বুধবার দিন থেকে।

এদিন ভারতের হারের পর চাপ সহ্য করতে না পেরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে অনেকেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এনডিটিভির খবরে প্রকাশ, সেদিন ধোনির রানআউটের পর মাটিতে লুটিয়ে পড়ে জ্ঞান হারান দেশটির পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার সেকেন্দরপুরের সাইকেল বিক্রেতা শ্রীকান্ত (৩৩) মাইতি। দ্রুত হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে ফাইনালে ভারতীয় দল উঠতে না পারায় ক্ষুব্ধ হয়ে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন উড়িষ্যার যুবক সম্বরু ভই (২৫)।

শেষ চার থেকে ভারতের বিদায় মেনে নিতে না পেরে টিভি ভাঙার হিড়িকেও মেতেছিলেন ভারতীয়রা। এমন সব ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছড়িয়েছে।

যারা এসবের কিছুই করেননি, তাদের অনেকে কোহলি-ধোনিদের নিয়ে ট্রলে মেতেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় যে যার মতো অপদস্থ করেছেন বিরাট কোহলিকে।

ক্ষুব্ধ হয়ে রাস্তায় নেমে এসেছেন কেউ কেউ। মিছিল করে ভারতীয় দলের খেলোয়াড়দের ছবিতে আগুন ধরিয়ে নিজেদের রাগ ঝেড়েছেন।

ভারতে এ ধরনের ঘটনা নতুন কিছু নয়। ক্রিকেটারদের ছবি পোড়ানোকে মামুলি ঘটনাই বলা চলে। এর আগে ক্রিকেটারদের গাড়িবহরে ডিম ছোড়া থেকে শুরু করে বাড়িঘরে পর্যন্ত হামলা করার ঘটনা ঘটেছে সেখানে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 BangaliTimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com