সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:২০ পূর্বাহ্ন

মাত্র ৭০ হাজার টাকা হলেই একজন অবুঝ শিশু ফিরে পেতে পারে তার মাকে

মাত্র ৭০ হাজার টাকা হলেই একজন অবুঝ শিশু ফিরে পেতে পারে তার মাকে

মাত্র ৭০ হাজার টাকা হলেই একজন অবুঝ শিশু ফিরে পেতে পারে তার মাকে

মা সারাদিন খালি কাঁদে। ঠিকমতো কথা বলে না। মাঝে মাঝে পেটের তিব্র যন্ত্রনায় ছটফট করে আর ডুকরে ডুকরে কাঁদে! আর মায়ের এসব কষ্ট দেখে মায়ের সাথে অঝরে কাঁদে অবুঝ শিশু ইমরান।

একমাত্র কান্নাই যেনো মা ও মাছুম ছেলের একমাত্র সম্বল। বলছি কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার নন্দনপুর গ্রামের অসুস্থ নাছিমার কথা। নাছিমার একেসাথে ইউট্রাসে টিউমার ও পিত্তথলিতে পাথর হয়েছে। কুড়িগ্রামের ডাক্তাররা ইউট্রাসের টিউমারের অপারেশন করার জন্য গত ৫ মাস আগে ৩ দিনের সময় দিলেও টাকা যোগাড়ের অভাবে আজ ৫ মাসেও সে অপারেশন করতে পারেনি অসুস্থ নাছিমা।

এছাড়া পিত্তথলির পাথরের অবস্থাও খারাপ। সেটারও অপারেশন জরুরী। রোগ দুটি স্পর্শকাতর ও বিপদজনক জায়গায় হওয়ায় ডাক্তাররা দ্রুত অপারেশন করতে বলে। ডাক্তার আরও আশংকা প্রকাশ করে বলে অন্তত ইউট্রাসে টিউমারের অপারেশন না করলে সেটি ক্যান্সারে চলে যাবে। এবং দু’টো অপারেশনের জন্য প্রায় ৭০ হাজার টাকা লাগবে বলে জানায়।

কিন্তু যেখানে দরিদ্র নাছিমার দু’বেলা দু-মুঠো ভাত জোগাড় করতেই হিমসিম খেতে হয় সেখানে ৭০ হাজার টাকা যোগাড় করা প্রায় স্বপ্নের মতোই ব্যাপার। তাই অসহায়ত্বকে পুঁজি করে আল্লাহপাকের উপর সব ছেড়ে দিয়ে নিরবে নিভৃতে কাঁদা ছাড়া আর কি ই বা করতে পারে নাছিমার পরিবার ? পিত্তথলি ও ইউট্রাসের অপারেশন না করায় ও নিয়মিত ঔষুধ খেতে না পারায় পেটের তিব্র ব্যাথায় পাগলের মতো বিছানায় ছটফট করে কাটায় নাছিমা।

পেটের ব্যাথা উঠলে তার চিৎকার ও কান্নায় ভারী হয়ে ওঠে সেখানকার আকাশ বাতাস। নাছিমার ছেলে ইমরান এ প্রতিবেদকের সাথে কথা হলে সে অঝরে কাঁদতে কাঁদতে বলে, আমার মা’কে আপনারা বাঁচান। আমার মা সারাদিন মন খারাপ করি থাকে, খালি কাঁদে, ব্যাথায় চিৎকার করে, ঠিকমতো কথা বলে না কিছু খেতে পারে না। আপনারা আমাদের মাকে বাঁচান।

নাছিমা চোখের পানি মুছতে মুছতে খুব কষ্ট করে এ প্রতিবেদককে বলেন, বাঁচার আশা ছাড়ি দিচং! পেটে সারাদিন যন্ত্রনা করে। এখন কয়েকদিন থাকি বেশি হইছে। সহ্য করবের পাংনা। এতো কষ্টের চেয়ে মোর মরণ ভালো!! তিনি আরও প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন মুই মরলে মোর অবুঝ ছওয়া(বাচ্চা) টার কি হবে ?? ছওয়া (বাচ্চা)টার জন্য বাঁচপার চাং। তোমরা দয়া করি মোক বাঁচান। সবার কাছে অনুরোধ মোক তোমরা সাহায্য করো।

প্রতিবেদকের দু’টি কথাঃ আমি অসুস্থ নাছিমার ও তার বাচ্চার করুন আকুতি শুনে অপারেশন করানোর চেষ্টা করছি। বর্তমানে নাছিমাকে আমি আমার বাড়িতে রেখেছি। সমাজের হৃদয়বান বৃত্তবানেরা এগিয়ে এলে দ্রুত নাছিমার অপারেশনের জন্য রংপুরে নিয়ে যাবো। এ ক্ষেত্রে আমি দেশ বিদেশের সকল হৃদয়বার ও বৃত্তবান মানুষের কাছে বিনীত অনুরোধ করছি, মাসুম বাচ্চাটার মাকে বাঁচাতে আসুন যে যার অবস্থান থেকে সামর্থমত এগিয়ে আসি। জয় হোক মানবতার, শিশুটা ফিরে পাক তাদের সুস্থ মাকে- মানুষ মানুষের জন্য-

নাছিমার পাশে দাড়াতে তার ব্যাক্তিগত হিসাব নং- ০২০০০১৩৭৭২২০৪, হিসাবের নাম- নাছিমা বেগম, ব্যাংকের নাম- অগ্রণী বাংক লিমিটেড, শাখার নাম- ভিতরবন্দ হাট শাখা, কুড়িগ্রাম

আরও তথ্য ও ইমো, ভাইবারে ভিডিও কলে নাসিমার সাথে কথা বলতে আমাদের ষ্টাফ রিপোর্টার প্রভাষক ফয়সাল শামীম-০১৭১৩২০০০৯১

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 BangaliTimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com