সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:১৭ পূর্বাহ্ন

বিপদে প্রধানমন্ত্রীকে পাশে পেয়ে খাশি কোরবানি দিলেন কৃষক আকন্দ

বিপদে প্রধানমন্ত্রীকে পাশে পেয়ে খাশি কোরবানি দিলেন কৃষক আকন্দ

বিপদে প্রধানমন্ত্রীকে পাশে পেয়ে খাশি কোরবানি দিলেন কৃষক আকন্দ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুদানের টাকায় একটি ছাগল কিনে স্বাবলম্বী হয়ে প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘায়ু কামনা করে পশু কোরবানি করেছেন লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের মোজাম্মেল হক আকন্দ নামে এক ব্যক্তি। মোজাম্মেল হক আকন্দ পেশায় একজন কৃষক। প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা করে এই কোরবানি করেন বলে জানান তিনি।

শুক্রবার (৯ আগস্ট) দুপুরে জুমার নামাজের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে স্থানীয় গড্ডিমারী তালেব মোড় জামে মসজিদে একটি খাশি কোরবানি করেন তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন হাতীবান্ধার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন, গড্ডিমারী ইউনিয়নের যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

জানা গেছে, মোজাম্মেল হক আকন্দ হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের নিজ গড্ডিমারী গ্রামের মৃত কেরামত আলী আকন্দ পুত্র।

২০১৫ সালে ব্যাংকের মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর জন্য একটি পশু কোরবানি দিবেন বলে নিয়ত করেন। এরপর প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা করে ১১ জন নারী ও তিনি নিজেও কোরআন খতম দিয়েছেন।

২০১৫ সালে উপজেলায় তিস্তা নদীর গর্ভে জায়গা জমি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েন মোজাম্মেল হক আকন্দ। কোনো উপায় না পেয়ে সাহায্যের আবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০ হাজার টাকা অনুদান দেন তাকে। অনুদানের ১৭ হাজার টাকায় ঘর-বাড়ি মেরামতের কাজে লাগান মোজাম্মেল হক আকন্দ। বাকি ৩ হাজার টাকা দিয়ে একটি ছাগল কিনেন। পরবর্তীতে একটি ছাগল লালন পালন করে আজ ৬টি ছাগল হয়েছে এবং সেইগুলো থেকে আবার ৪টি হয়েছে। বর্তমানে মোট ৯টি ছাগল তার। একটি ছাগলেই ভাগ্য ফেরায় মোজাম্মেল হক আকন্দের। ছাগল বিক্রয় করে একটি গরুও কেনেন তিনি। এরপর থেকে স্বাবলম্বী হয়ে উঠেন তিনি।

তিস্তা পাড়ের হতদরিদ্র কৃষক মোজাম্মেল হক আকন্দের স্ত্রী জামেলা বেগম জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই সময় টাকাটা না দিলে আজ আমরা পথে বসতাম। প্রধানমন্ত্রী দেয়া সেই টাকায় ১টি ছাগল কিনে লালন-পালন করছি। আজ অনেক ছাগল আমাদের। তাই প্রধানমন্ত্রীর নামে একটি ছাগল কোরবানি দেব বলে অনেক দিন থেকে খাশিটিকে লালন পালন করছি।

তিনি আরও জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুদানের টাকায় আমি আজ স্বাবলম্বী। আমার কষ্টের সময় কেউ ছিল না, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছিলেন। তাই তার দীর্ঘায়ু কামনা করে জুমার নামাজের পর খাশি কোরবানি করেছি। আল্লাহ যেন আমার কোরবানি কবুল করেন।

প্রধানমন্ত্রীর নামে কোরবানি দিচ্ছেন কৃষক আবেদ

ছবি: সংগৃহীত

ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে গরু কোরবানি করবেন উপজেলার মাইলবাড়ীয়া ঢাকাপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল হেকিম উদ্দীন শেখের ছেলে আবেদ আলী শেখ। আবেদ আলী শেখ পেশায় একজন কৃষক। প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা করে এই কোরবানি দিচ্ছেন বলে জানান তিনি।

কৃষক আবেদ আলী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে কোরবানী দিবো বলে নিয়ত করেছি। আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে ভালবাসি, জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ভালবাসি।

তিনি আরও জানান, আমি ২০০৮ সালে জননেত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া ‘একটি বাড়ী একটি খামার’ প্রকল্প থেকে ২০ হাজার টাকা ঋণ নেই, সেই টাকা থেকে ১৭ হাজার একশত টাকা দিয়ে একটি গাভী ক্রয় করি। আমি তখনই নিয়ত করেছিলাম গাভী থেকে যদি ৫ টি বাছুর হয় তাহলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে কোরবানী দিবো।

পরবর্তীতে গাভী গরুটি লালন পালন করতে থাকি এবং গাভী থেকে আজ পর্যন্ত ৫ টি বাছুর হয়েছে, এবং সেইগুলো থেকে আরো ৪ টি হয়েছে। বর্তমানে মোট ৯ টি গরু রয়েছে আমার। যার আনুমানিক বাজার মূল্য বর্তমান প্রায় ৬ লক্ষ টাকা।

স্থানীয় স্কুল শিক্ষক নজরুল ইসলাম জানান, এ কোরবানির ব্যাপারে এলাকায় খোঁজ নিয়েছি। তবে লোকজন তেমন কিছু জানে না।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানান, আবেদ আলী জন্মসূত্রেই আওয়ামী লীগ। তিনি এখনও কোনো পদপদবী নেননি। একজন সাধারণ কৃষক মাত্র। তবে তিনি প্রধানমন্ত্রীর নামে গরু কোরবানি দেবেন এ বিষয়ে তারা কিছু জানেন না।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 BangaliTimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com