সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৩০ অপরাহ্ন

২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্ত ১,১৮৯ জন

২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্ত ১,১৮৯ জন

২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্ত ১,১৮৯ জন

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চলতি বছর এ পর্যন্ত রাজধানীসহ সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ৬৮ হাজার ৪১০ জন ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে চলতি মাসেই (২৯ আগস্ট পর্যন্ত) হাসপাতালে প্রায় ৫০ হাজার ডেঙ্গু রোগী ভর্তির নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গেল ২৪ ঘণ্টায় অর্থাৎ বুধবার সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত রাজধানীসহ সারাদেশে হাসপাতালে নতুন করে ভর্তি হয়েছেন মোট ১ হাজার ১৮৯ জন ডেঙ্গু রোগী। তাদের মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ৫২৪ জন এবং ঢাকার বাইরে ৬৬৫ জন ভর্তি হন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুম সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এদিকে ডেঙ্গু ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নতুন করে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা গেছে, ১ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ৪৯ হাজার ৯৪৯ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। যা গতবছর অর্থাৎ ২০১৮ সালে সারা বছরে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় পাঁচগুণ। সরকারি হিসেবে চলতি বছর ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ৫২ জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে এপ্রিলে ২, জুন ৫, জুলাই ২৮ ও চলতি আগস্ট মাসে ১৭ জন ডেঙ্গু রোগী মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ডা. আয়শা আক্তার জানান, মাস অনুযায়ী জানুয়ারিতে ৩৮ জন, ফেব্রুয়ারিতে ১৮ জন, মার্চে ১৭ জন, এপ্রিলে ৫৮ জন, মে মাসে ১৯৩ জন, জুনে ১ হাজার ৮৮৪ জন, জুলাইয়ে ১৬ হাজার ২৫৩ জন এবং আগস্টে (১ থেকে ২৯ আগস্ট পর্যন্ত) ৪৯ হাজার ৯৪৯ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ৬৩ হাজার ২০০ জন অর্থাৎ ৯২ শতাংশ রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে রাজধানীর চেয়ে ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গু রোগী বেশি ভর্তি হচ্ছেন। গত ২৩ আগস্ট থেকে বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) পর্যন্ত বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ভর্তিকৃত মোট সংখ্যা ৮ হাজার ৮২০ জন। তাদের মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ৪ হাজার ১২৬ জন ও ঢাকার বাইরে ৪ হাজার ৬৯৪ জন ভর্তি হয়েছেন। সে হিসেবে ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলোতে ৫৬৮ জন বেশি ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন।

ডেঙ্গু জ্বরে মায়ের মৃত্যু, ছেলে হাসপাতালে: ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে বুধবার রাতে রাজধানীর সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক মায়ের মৃত্যু হয়েছে। আর হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগের চিকিৎসা নিচ্ছে তার ছেলে। মারা যাওয়া ওই গৃহবধূর নাম শারমিন আক্তার (৩০)। তিনি শরীয়তপুরের স্থানীয় ‘রুদ্রবার্তা’ পত্রিকার সাংবাদিক জাবেদ শেখের স্ত্রী। পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ধানুকা গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন শারমিন। তাদের ছেলে তামজীদ (১০) ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

শারমিনের পরিবার জানায়, ২২ আগস্ট শারমিনের জ্বর অনুভূত হয়। জ্বর ক্রমেই বাড়তে থাকলে ২৩ আগস্ট শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে রক্ত পরীক্ষা করলে ডেঙ্গু জ্বর শনাক্ত হয়। পরের দিন অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে ঢাকা নেওয়া হয়। শারমিনের স্বামী জাবেদ শেখ বলেন, আমার দুই ছেলে তামজীদ (১০) ও তানজীল (৩)। আমার স্ত্রী শারমিন ও বড় ছেলে তামজীদ একই সঙ্গে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়। সন্তান দুটি রেখে ওর মা চিরতরে চলে গেল। এখন বড় ছেলেও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ছেলের অবস্থাও তেমন ভালো না। স্ত্রীর লাশ ফরিদপুর সদর উপজেলার নরসিংহদিয়া গ্রামে দাফন হবে বলেও জানান তিনি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 BangaliTimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com