শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

এক সপ্তাহের মধ্যে হাকালুকির তথ্য রামসার সচিবালয়ে পাঠানোর প্রস্তাব

এক সপ্তাহের মধ্যে হাকালুকির তথ্য রামসার সচিবালয়ে পাঠানোর প্রস্তাব

এক সপ্তাহের মধ্যে হাকালুকির তথ্য রামসার সচিবালয়ে পাঠানোর প্রস্তাব

এশিয়ার বৃহত্তম হাকালুকি হাওরকে রামসার সাইট হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

এ লক্ষ্যে শুক্রবার মৌলভীবাজারের এক হোটেলে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. একেএম রফিক আহাম্মদের সভাপতিত্বে কর্মশালায় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল্লাহ আল মোহসীর চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. এসএম মনজুরুল হান্নান খান।

উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরীন এবং হাকালুকি হাওর তীরের কুলাউড়া, জুড়ি, বড়লেখা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বড়লেখা উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার, মৎস্য অফিসার, কৃষি অফিসার ও উপজেলা প্রকৌশলীবৃন্দ।

অংশগ্রহণকারী সূত্রে জানা গেছে, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে হাকালুকি হাওরের নির্ধারিত তথ্যাদি রামসার সচিবালয়ের চাহিদা অনুসারে নির্ধারিত ছকে পূরণ করে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়। এরপর হাওরকে রামসার সাইট ঘোষণার জন্য প্রস্তাব পাঠানো হবে।

২০০০ সালে দেশের অন্যতম সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরও রামসার সাইটের অন্তর্ভুক্ত। হাকালুকি হাওর রামসার সাইটের অন্তর্ভুক্ত হলে মৎস্য অভয়াশ্রম, পাখির অভয়াশ্রম, উদ্ভিদ ও জলাভূমি সংরক্ষণে কাজ হবে।

উল্লেখ্য ২০১১ সালে দৈনিক যুগান্তরে ‘এশিয়ার বৃহত্তম হাকালুকি হাওরকে রামসার সাইট ঘোষণার দাবি’ শীর্ষক একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 BangaliTimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com