মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন

ফাগুনে_আগুন_শিমুল_বাগানে

ফাগুনে_আগুন_শিমুল_বাগানে

ফাগুনে_আগুন_শিমুল_বাগানে

সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর ইউনিয়নের মানিগাঁও গ্রামে শিমুল বাগানের অবস্থান। বর্ষাকালে শিমুল বাগান সবুজের সমারোহ। আর ফাগুনে শিমুল বাগান রক্তরাঙা ফুলে ফুলে ছেয়ে যায়। বাগানের একপাশে যাদুকাটা নদী ও আরেক পাশে ভারতের মেঘালয়ের পাহাড় দেখা যায়। একদিনের ট্যুরে ঘুরে আসতে পারেন শিমুল বাগান, বাশঁবাগান, লাকমাছড়া, টেকেরঘাট, শহীদ সিরাজ লেক, বারেকটিলা।
#শিমুল_বাগানঃ
প্রায় ১০০ বিঘা জমির উপর মানিগাওঁ গ্রামে ২০০২ সালে প্রায় ৩০০০ চারা গাছ রোপ করেন স্থানী ব্যবসায়ী জনাব জয়নাল আবেদিন। বসন্তকালে গাছে গাছে শিমুল ফুল ফুটে রক্ত লাল পাপড়িগুলোর সৌন্দর্য পর্যটকদের মনে শিহরণ ধরিয়ে দেয়ার জন্য যতেষ্ট। এর আকর্ষণে বসন্তকালে প্রচুর প্রকৃতি প্রেমিদের আগমন ঘটে শিমুল বাগানে। তখন মেঘালয়ের পাহাড়, যাদুকাটা নদীর পানি রঙ ও শিমুল বাগানের ফুল সব মিলিয়ে গড়ে তুলে প্রকৃতির এক অনবদ্য রূপ।
#বাশঁবাগানঃ
শিমুল বাগানের পাশেই রয়েছে একটি বড় বাশঁবাগান।চাইলে ঘুরে আসতে পারেন।
#লাকমাছড়াঃ
টেকেরঘাটের থেকে ৫ মিনিটের দূরত্বে লাকমাছড়ার অবস্থান। যদিও এই সময়টায় এখানে পানির পরিমাণ কম। তবে মানুষের আনাগোনা কম থাকায় ভাল লাগবে। চুনাপাথর আর কয়লা সংগ্রহকারী শ্রমিকদের আনাগোনা সব সময়েই থাকে এখানে। কোনো কোলাহল নেই, মানুষের ভিড় নেই, ময়লা আবর্জনা নেই বলে যে দিকে এগিয়ে যাবেন মুগ্ধ হবেন।
#টেকেরঘাটঃ
এখানে শহীদ মিনার ও শহীদ সিরাজ লেকের অবস্থান। তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নে টেকেরঘাট গ্রামের অবস্থান। এখানেই রয়েছে শহীদ সিরাজ লেক। অনেকেই একে নিলাদ্রী লেক নামে ডাকেন। যদিও স্থানীও এই লেকটিকে পাথর কোয়ারি নামে চেনে। লেকের চমৎকার সুন্দর পানি ও এর আশেপাশে সৌন্দর্য পর্যটকদের আকর্ষণ করে।
#বারেকটিলাঃ
আকাশ,মেঘ, পাহাড়, নদী ও প্রকৃতির সংমিশ্রণ দেখতে হলে যেতে হবে বারেকটিলার উপর। বারেকটিলার উপর দাঁড়ালে একদিকে চোখে পড়ে হাওড় ও অন্যদিকে সারি সারি পাহাড়। এ মনোরম দৃশ্য যে কার মন কেড়ে নেয় সহজেই।

#যাতায়াতঃ
১. ঢাকা থেকে বাসে করে সুনামগঞ্জ বাস স্টেশন। ইউনিক, শ্যামলী, হানিফ ইত্যাদির ভাড়া ৫৫০ থেকে শুরু। তাছাড়া কিছু লোকাল বাস পাওয়া যায় ৩৫০-৪০০ টাকায়।
২.বাস স্টেশন থেকে হেটে বা ইজি বাইকে করে নতুন ব্রিজ (আব্দুর জহুর সেতু) পাড় হয়ে বাইক ভাড়া করে লাউয়েরগড় যেতে হবে। ভাড়া ২০০-২৫০ টাকা। এক বাইকে ২ জন বসা যায়। লাউয়েরগড় থেকে ৫ টাকা দিয়ে নদী পাড় হয়ে কিছু দূর হাটলেই শিমুল বাগান। তাছাড়া বাইক ভাড়া করে সরাসরি শিমুল বাগান যেতে পারেন। সেক্ষেত্রে ভাড়া পরবে ২৫০-৩০০ টাকা। সিএনজি(৫ জন বসা যায়) রিসার্ভ করেও লাউয়েরগড় পর্যন্ত যেতে পারেন। তখন ভাড়া পরবে ৫০০ টাকা। লেগুনা (১৪ জন) ভাড়া ১২০০ টাকার মত। লাউয়েরগড় থেকে সুনামগঞ্জ আশার সময় সকল ক্ষেত্রেই একই ভাড়া পরবে। তবে বন্ধের দিন গুলোতে পর্যটকদের চাপে সিএনজি/লেগুনা পাওয়ার সম্ভাবনা কম। তখন একমাত্র ভরশা বাইক।
৩. এবার শিমুল বাগান থেকে বাইক ভাড়া করে লাকমাছড়া, টেকেরঘাট, শহীদ সিরাজ লেক(অনেকে নিলাদ্রী বলে), বারেকটিলা ঘুরে চলে আসুন নতুন ব্রিজ। ব্রিজ থেকে হেটে বাস স্টেশন।বাইক ভাড়া নিবে ৪০০-৫০০ টাকা ২ জনের জন্য।

#খাওয়া_দাওয়াঃ
সকালের নাস্তা সুনামগঞ্জ বাস স্টেশনের পাশে কোন রেস্টুরেন্টে করে নিবেন।
দুপুরের খাবারে জন্য ভাল কোন রেস্টুরেন্ট আশা না করে স্থানীয় হোটেল গুলোতে যা পাবেন খেয়ে নিয়েন।
রাতের খাবার বাস স্টেশনের পাশে কোন রেস্টুরেন্ট করতে পারেন।

#বিঃদ্রঃ
১. ফেব্রুয়ারি মাসে শিমুল বাগানে পর্যটকদের আগমন বেশি থাকে। তাই বিশেষ করে ছুটির দিন গুলোতে সম্ভব হলে না আসার চেষ্টা করুন। কারন ছুটির দিন গুলোতে অধিক পর্যটকের কারনে শিমুল বাগানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করে পারবেন না।
* তাছাড়া ছুটি দিন গুলোতে যানবাহন সংকট এর সাথে অধিক ভাড়া দাবি করে।
২. সিলেট বাস/ট্রেন স্টেশন থেকে সুনামগঞ্জ যেতে ৩ ঘন্টা সময় লাগে। তাই সময় বাঁচাতে ঢাকা থেকে সরাসরি সুনামগঞ্জ চলে আসুন। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে সরাসরি সুনামগঞ্জের বাস পাওয়া যায়।
৩. যে কোন বাহন ভাড়া করার সময় দরদাম করে নিবেন। এখানে গাড়ির কোন সিরিয়াল নেই। তাই আপনি তুমুল দরকষাকষি করতে পারেন।
৪. ধুলাবালি থেকে বাচতে মাস্ক ব্যবহার করুন। যাদের ধুলাবালিতে এলার্জির সমস্যা আছে তারা অবশ্যই প্রয়োজনীয় ঔষধ নিয়ে যাবেন।
৫. শিমুল বাগান ব্যক্তি মালিকানাধীন সম্পত্তি। তাই বাগানের ক্ষতি হয় এমন কিছু করবেন না। তাছাড়া পানির বোতল, চিপসের প্যাকেট, বিরিয়ানি প্যাকেট ইত্যাদি নির্দিষ্ট স্থানে ফেলুন। মনে রাখবেন আপনার ফেলে আসা আবর্জনা বাগানের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করবে না।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *