বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১০:৩১ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ
ব্রেকিং নিউজ: ২৪ ঘণ্টায় ১৫৪১ জন করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২২    
২৫০০ টাকার তালিকায় নাম গরিবের, নম্বর মেম্বারের!

২৫০০ টাকার তালিকায় নাম গরিবের, নম্বর মেম্বারের!

২৫০০ টাকার তালিকায় নাম গরিবের, নম্বর মেম্বারের!

করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হতদরিদ্র ও নিম্ন মধ্যবিত্তদের প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ২৫০০ টাকা আর্থিক সহায়তার তালিকায় নীলফামারীর ডোমার উপজেলার বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের চার জন গরিবের নামের সঙ্গে ছয় নম্বর ওয়ার্ড সদস্য জয়নাল আবেদীনের মোবাইল নম্বর সংযুক্ত করা হয়েছে।

তবে ইউপি সদস্য বলছেন, ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের ভাই তামিম ইসলাম শত্রুতা করে আমার মোবাইল নম্বর ওই তালিকায় দিয়েছেন। ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রিমুন বলেন, ইউপি সদস্য নিজের দায় এড়িয়ে অন্যের ওপর দোষ চাপিয়ে দিচ্ছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সমঝোতায় আসল সুবিধাভোগীদের মোবাইল নম্বর সংযুক্তের কাজ চলছে।

তালিকার আনিছুর রহমান ও মোকবুল ইসলাম জানান, সরকারি সহায়তা ২৫০০ টাকা দেয়ার কথা বলে তাদের নাম ও মোবাইল নম্বর ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন নেয় ৭-৮ দিন আগে। শুক্রবার রাত ২টার সময় মোবাইল নম্বর ভুল হয়েছে বলে আবার তিনি মোবাইল নম্বর নেন।
ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন বলেন, আমি ঠিকমত নামের সাথে মিল করে মোবাইল নম্বর চেয়ারম্যানের কাছে জমা দেই। কিন্তু চেয়ারম্যানের ভাই তামিম শত্রুতা করে চার জনের নামের সঙ্গে আমার মোবাইল নম্বর ব্যবহার করেন। চেয়ারম্যানের ভাই ইউনিয়নে চাকরি না করলেও সেই সব কাজ করেন।

ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই তামিম ইসলাম তার বিরুদ্ধে নম্বর সংযুক্তের বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, ইউনিয়ন পরিষদের আমি কেউ না। আমি ইউপি সদস্যের নামও সংযুক্ত করি নাই।

এ বিষয়ে বোড়াগাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রিমুন জানান, ইউএনও মহোদ্বয়ের কাছে তালিকা জমা দেয়ার পর ইউপি সদস্য জয়নালের মোবাইল নম্বর চার জনের নামের সঙ্গে পাওয়া গেছে। ইউপি সদস্য এর দায় এড়িয়ে অন্যের ওপর দোষ চাপাতে চাচ্ছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিনা শবনম জানান, ইউপি সদস্য আমাকে বলেছেন, তিনি লেখাপড়া জানেন না। শত্রুতা করে তার নম্বর দেয়া হয়েছে। কিন্তু তালিকায় অন্যের নামের সঙ্গে তার নিজের, স্ত্রী ও ছেলের মোবাইল নম্বর রয়েছে। এখন সংশোধনের কাজ চলছে। আরও তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *