সোমবার, ১৩ Jul ২০২০, ১১:৫৭ অপরাহ্ন

বেতন চাওয়ায় প্র’তিবন্ধী কি’শোরের শ’রীর পু’ড়িয়ে দিল দো’কান মা’লিক

বেতন চাওয়ায় প্র’তিবন্ধী কি’শোরের শ’রীর পু’ড়িয়ে দিল দো’কান মা’লিক

বেতন চাওয়ায় প্র’তিবন্ধী কি’শোরের শ’রীর পু’ড়িয়ে দিল দো’কান মা’লিক

ফরিদপুরের মধুখালী মরিচ বাজারে বেতন চাওয়ায় এক বুদ্ধি প্রতিব’ন্ধী দোকান ক’র্মচারী কি’শোরের

শরীর গ’রম খু’ন্তি ও পা’ইপ দি’য়ে পু’ড়িয়ে দেয়ার অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। নি’র্যাতনের

শি’কার দোকান ক’র্মচারী তাপসকে (১৪) জে’লার মধুখালী উপজেলা স্বা’স্থ্য ক’মপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার (৩০ মে) দুপুরে মধুখালী উপজে’লা স্বা’স্থ্য ক’মপ্লেক্সে আ’হত তাপসকে দেখতে যান ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো: আলীমুজ্জামান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বোয়ালমারী উপজেলার ঘোষপুর ইউনিয়নের কান্দাকুল গ্রামের বুদ্ধি প্রতিব’ন্ধী তাপস

প্রায় এক বছর ধরে মরিচ বাজারের বিপ্লব সাহার চা ও মুদি দোকানে কাজ করে আসছে।

তাকে শুধু খাবার দেয়া হতো, কোনো বেতন দিতেন না দোকান মালিক। গত কয়েক মাস তাপস দোকান মালিকের কাছে বেতন চাইছিল।

এ কারণে শুক্রবার (২৯ মে) বিকেলে তাপসকে মা’রধর করা হয়। এরপর সন্ধ্যা ৬টার দিকে

গরম খু’ন্তি ও স্টি’লের গ’রম পা’ইপ দিয়ে তাপসের ঘা’ড়, হা’ত ও পি’ঠ পু’ড়িয়ে দে’য়া হয়।

খবর পেয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে পুলিশ বিপ্লব সাহার বাবা বিমল সাহা ও তার ছোট ছেলে পলাশকে

আ’টক করে থানায় নিয়ে আসে। রাতে তাপসকে মধুখালী উপজে’লা স্বা’স্থ্য ক’মপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় থানায় মা’মলা করা হয়েছে।

মধুখালী উপজেলা স্বা’স্থ্য ক’মপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. কবির সরদার জানান, হা’সপাতালে ভ’র্তির পর তাপসের শ’রীরে হঠাৎ র’ক্তক্ষরণ হয়। শনিবার সকালে তার শ’রীরে এক ব্যাগ র’ক্ত দেয়া হয়েছে।

মধুখালী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিনুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় থানায় মা’মলা করা হয়েছে।

মা’মলার ত’দন্তকারী ক’র্মকর্তা ও’সি (ত’দন্ত) রথীন্দ্রনাথ জানান, ঘটনায় জ’ড়িত থাকার অ’ভিযোগে দুইজনকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে। দুপুরে ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলীমুজ্জামান হা’সপাতালে আ’হত তাপসকে দেখতে গিয়েছিলেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *