শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
আরেক দফা বাড়ল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি,কলেজশিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু ৪ অক্টোবর কাশ্মীরে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর গুলিতে ভারতীয় সেনাসদস্য নিহত এরদোয়ানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ আজারবাইজানের ফার্স্ট লেডির বাবরি মসজিদ মামলা: ভারতের আদালতের আরেকটি লজ্জাজনক রায়! ‘ভারতে এতটা কোণঠাসা কখনোই ছিল না মুসলমানরা’ ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে তিন ভারতীয় সেনা নিহত মি’ন্নির ফাঁ’সি কা’র্য’কর হলে আমি মিলাদ দেব: নয়ন ব’ন্ডের মা কা’রা’গার থেকে মুঠোফোনে বাবা-মায়ের সঙ্গে মি’ন্নির কান্নাকাটি সিনেমার গল্পকেও হার মানায় রিয়াজ ও তার স্ত্রীর প্রেম-বিয়ের কাহিনী ‘ইনশাল্লাহ’ বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বাইডেন, টুইটারে ঝড়
বৃষ্টি ভেজা মানব বন্ধন, অবরুদ্ধ ডিজি!!!!

বৃষ্টি ভেজা মানব বন্ধন, অবরুদ্ধ ডিজি!!!!

বৃষ্টি ভেজা মানব বন্ধন, অবরুদ্ধ ডিজি!!!!

বৃষ্টি উপেক্ষা করে ৭ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে পূর্ব কর্মসূচি অনুযায়ী মানব বন্ধন করেছে বাংলাদেশ ফিজিওথেরাপি স্টুডেন্ট ইউনিয়ন (বাপসু)।

০৯ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বুধবার, সকাল ১০ টা হতে দুপুর ১ টা পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মহাখালী, ঢাকা এর নতুন ভবনের সামনে এ মানব বন্ধন করে বাপসু।অনতিবিলম্বে বাংলাদেশ কলেজ অফ ফিজিওথেরাপি নির্মাণ, ইনটার্ন ফিজিওথেরাপি চিকিৎসকদের ভাতা, সরকারি হাসপাতালে ১ম শ্রেণির পোস্ট সৃজন ও নিয়োগ সহ মোট ৭ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে এ মানব বন্ধন করেছে ফিজিওথেরাপি স্টুডেন্ট ও ইনটার্ন ফিজিওথেরাপি চিকিৎসকরা।

সাত দফা দাবি গুলোর মদ্ধে রয়েছে-
০১. অতিসত্বর “বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিওথেরাপি”এর ভবন নির্মাণ বাস্তবায়ন করতে হবে। ভবন নির্মান সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত অস্হায়ী ক্যাম্পাসে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করতে হবে।

০২. সরকারী প্রতিষ্ঠানের ইন্টার্ন ফিজিওথেরাপিস্টদের জন্য মাসিক ইন্টার্ন ভাতা প্রদান করিতে হবে এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে ইন্টার্ণ ভাতা প্রদান বাধ্যতামুলক করতে হবে।

০৩. অনতিবিলম্বে সরকারী হাসপাতাল/স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে ফিজিওথেরাপিস্টদের ১ম শ্রেণির পদ সৃজন ও নিয়োগ প্রদান করতে হবে।

০৪. ফিজিওথেরাপি তে ভর্তি পরীক্ষা দেয়ার জন্য ন্যূনতম জিপিএ(এসএসসি+এইচএসসি) ০৯.০০ নির্ধারণ করতে হবে।

একইসাথে সরকারি ও বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর নিয়ন্ত্রিত ” সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার” মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তির ব্যবস্হা করতে হবে।

৫. সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিষয়ভিত্তিক পর্যাপ্ত শিক্ষক নিয়োগ দিতে হবে এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বিষয়ভিত্তিক পর্যাপ্ত শিক্ষক থাকা বাধ্যতামূলক করতে হবে।

৬. সকল জেলা-উপজেলা পর্যায়ের স্বতন্ত্র ফিজিওথেরাপি বিভাগ ও জনবল নিয়োগ দিতে হবে।।

৭. বাংলাদেশে ফিজিওথেরাপি শিক্ষার্থীদের জন্য সরকারী পর্যায়ে উচ্চশিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে।

মানব বন্ধনে ইন্টার্ন ফিজিও চিকিৎসকদের পক্ষে ডাঃশান্তনু বাড়ৈ বলেন- ” আমরা ইন্টার্ন করেও ইন্টার্ন ভাতা পাচ্ছি না। সরকারের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি যাতে করে অতিশীঘ্রই আমাদের জন্য ইন্টার্ন ভাতা এবং সরকারি জবের বাস্তবায়ন করা হয়”

বাপসুর প্রচার সম্পাদক সালাউদ্দিন মুন বলেন” মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছা এবং রাষ্ট্রপতির লিখিত আদেশ থাকার পরেও আমাদের কলেজ হচ্ছেনা কেনো? কোন সে অদৃশ্য শক্তি কাজ করছে আমাদের পিছনে?”

বক্তব্যে বাপসু আহবায়ক নুজাইম প্রান্ত বলেন- “অনতিবিলম্বে আমাদের এই সাত দফা দাবি বাস্তবায়ন না হলে কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দেওয়া হবে”

এদিকে বাপসুর আন্দোলনের সাথে একাত্ত্বতা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ফিজিক্যাল থেরাপি এসোসিয়েশন (বিপিএ),এক বক্তব্যে বিপিএ সভাপতি ডাঃ দলিলুর রহমান বলেন, “বাংলাদেশ কলেজ অফ ফিজিওথেরাপি এখন সময়ের দাবি এবং এর প্রতিষ্ঠায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করছি”।

সবশেষ, বাপসু তাদের পূর্ব ঘোষিত শান্তিপূর্ণ মানব বন্ধন কর্মসূচি শেষ করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজি ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম এর সাথে দেখা করতে গেলে সেখানে তাদের বাধা দেয়া হয় এবং হুট্টোগোল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এসময় স্টুডেন্ট রা ডিজির রুম এর সামনে অবস্থান নিয়ে ডিজির রুম অবরুদ্ধ করে এবং স্লোগান দিতে থাকে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে ডিজি স্টুডেন্ট প্রতিনিধিদের সাথে সাক্ষাত করতে রাজি হোন এবং নুজাইম প্রান্ত বাপসু সভাপতি এর নেতৃত্বে ৪ জন প্রতিনিধি ডিজির সাথে দেখা করেন, তাদের বক্তব্য শুনার পর ডিজি আশ্বাস দেন, ফিজিওথেরাপির জব সংক্রান্ত কোন কাগজ তার টেবিলে আসলে তিনি তা অতি দ্রুত অগ্রবর্তী করবেন,একই সাথে বাকি দাবি গুলো বাস্তবায়নের জন্য সার্বিক সহোযোগিতা করবেন। ডিজি মহোদয়ের সাথে সাক্ষাত শেষে বাপসু প্রচার সম্পাদক সালাউদ্দিন মুন বলেন, ডিজি মহোদয় আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন কিন্তু আমরা আমাদের অধিকার আদায়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে নেমেছি। অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে, প্রয়োজনে অবস্থান ধর্মঘট সহ আমরণ অনশনে যাবে ফিজিওথেরাপি স্টুডেন্টরা।

রিপোর্টঃ আবিদুর রহমান
ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক

 

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *