বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
রা’য় কা’র্য’কর হলে মিন্নিই হবে দেশের প্রথম ফাঁ-সি হওয়া নারী ‘এদের দৃ’ষ্টা’ন্ত’মূলক শা’স্তি না দিলে যুব’ক’রা ধ্বং’সে’র পথে যাবে’ মি-ন্নির মৃ-ত্যুদ-ণ্ড দেয়ার সময় যা ঘ-টেছে আ-দালতে রিফাত হ’ত্যা’র পর শেষ বার্তায় মিন্নিকে যা বলেছিল নয়ন বন্ড ফাঁ’সি’র রা’য়ের পর হাসতে হাসতে যা বললেন রিফাত ফরাজি আগামী সপ্তাহে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষার রুটিন, পরীক্ষার প্রস্তুতি জন্য সময় চার সপ্তাহ বাপসু কর্তৃক প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্বারকলিপিঃ পুলিশি বাধা ও হট্টগোল প্রবাসীর স্ত্রীদের জন্য স’ত’র্ক’তা, অবশ্যই পড়বেন! মহিলারা কোন ধরনের ছেলেদের সাথে প’র’কী’য়া করে! সবার জানা দরকার……. উ’ত্তে’জনাকর মূ’হুর্তে নাতির পু’রু’ষা’ঙ্গ কে’টে দিলেন দাদি!
ইউএনওর ঘটনার মুল হোতা তার নিজ কার্যালয়ের মালি, আজ জানা গেল আসল কারন

ইউএনওর ঘটনার মুল হোতা তার নিজ কার্যালয়ের মালি, আজ জানা গেল আসল কারন

ইউএনওর ঘটনার মুল হোতা তার নিজ কার্যালয়ের মালি, জানা গেল কারন

ঘোড়া ঘাটেরর ইউএনও ওয়াহিদার ঘটনার মোড় ঘুরছে প্রতিনিয়তই। প্রতিনিয়তই নতুন নতুন সব ঘটনার জন্ম হচ্ছে। বিশেষ করে এই ঘটনার নতুন মোড় তৈরী হয়েছে ইউএনও ওয়াহিদার ঘটনার সাথে জড়িত তার নিজ কার্যালয়ের মালির গ্রেফতারের পর থেকে। জানা গেছে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবার ওপর হা’/ম’/লা’/র ঘটনায় মূলহোতা রবিউল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশের কাছে রবিউল প্রাথমিকভাবে ঘটনার দায় স্বীকার করেছেন।

শুক্রবার রবিউলকে আটক করা হয়। তিনি বিরল উপজেলার বিজোড়া ইউপির বিজোড়া গ্রামের খতিব উদ্দীনের ছেলে ও ইউএনও কার্যালয়ের মালি পদে নিযুক্ত ছিলেন। ৫০ হাজার টাকা চুরি করার অপরাধে রবিউলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। আর সেই কারনে হয়তো এমন ঘটনা ঘটাতে পারেন তিনি।

শনিবার দুপুরে দিনাজপুরের এসপি কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য।

তিনি বলেন, ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলী শেখের ওপর হা’/ম’/লা’/র ঘটনার পর থেকে নিরলসভাবে কাজ করছে পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় রবিউল ইসলাম নামে সাময়িক বরখাস্ত হওয়া সরকারি কর্মচারীকে আমরা আটক করেছি। আটক রবিউল প্রাথমিকভাবে পুলিশের কাছে নিজের দায় স্বীকার করেছেন। তার তথ্যের ভিত্তিতে বেশ কিছু আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া তার বক্তব্য ও উদ্ধার করা সিসিটিভ ফুটেজের সঙ্গে মিল পাওয়া গেছে। অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে তার রিমান্ড আবেদন করা হবে।

২ সেপ্টেম্বর রাতে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলী শেখের ওপর হা’/ম’/লা চালানো হয়। এ ঘটনায় গ্রে’/ফ’/তা’/র হয়ে রিমান্ডে ছিলেন তিনজন।

এ দিকে এখনো ঢাকায় চিকিৎসাধীন আছেন ইউএনও ওয়াহিদা। তার অবস্থা হয়ে গিয়েছিল বেশ শোচনীয়। তবে চিকিৎসকদের আপ্রান চেষ্টায় বেশ খানিকটা ঘুরে দাড়িয়েছেন তিনি। নাড়াতে পারছেন হাতের অবস সেই সব আঙুল গুলো। চিকিৎসকরা বলছেন খুব দ্রুতই বেশ সুস্থ হয়ে উঠবেন তিনি।

গুরুত্বপূর্ণ সব সংবাদ  পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

https://www.facebook.com/BangaliTimesofficel

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *