বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
মুহাম্মদ (সঃ) কে অবমাননা :হুঙ্কার দিয়ে মাঠে নেমেছেন এরদোগান ইমরানসহ একাধিক বিশ্বনেতা ! দ্বিতীয়বার ব্যবসায়ীকে বিয়ে ক’রছেন জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস সোহেল চৌধুরীর পরিচিতজনদের খুঁজছেন কন্যা লামিয়া ক্যাটরিনার বিয়ে দিলেন অমিতাভ ও জয়া বচ্চন! সা’রাজীবন যৌ’ন শ’ক্তি ধরে রাখতে যে খাবার খাবেন ফ্রান্সে কিছুক্ষণের মধ্যেই বড় হা’ম’লার ঘোষণা টিভি দেখতে গিয়ে একাধিকবার ধ’র্ষণের শি’কার কলেজছাত্রী বিয়ের রাত থেকেই স্বামীর বি’কৃত যৌ’নস’ঙ্গ’মে মৃ’ত্যু হলো কিশোরী স্ত্রী মাত্র দেড় মাস হলো বিয়ে হয়েছে আর সেদিন থেকেই ঘুমাতে পারিনা ছে’লেকে বাঁ’চাতে নিজের কিডনি দিতে চান মা এখন শুধু প্রয়োজন চিকিৎসা খরচ
নিক্সন চৌধুরী: রাজনীতির ব্যতিক্রমী তারকা

নিক্সন চৌধুরী: রাজনীতির ব্যতিক্রমী তারকা

নিক্সন চৌধুরী: রাজনীতির ব্যতিক্রমী তারকা

ফরিদপুর সব সময় বড় বড় রাজনৈতিক নেতাদের জন্য আলোচিত। বেগম সাজেদা চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশারফ হোসেন, প্রয়াত কে, এম ওবায়দুর রহমান, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, কাজী জাফর উল্লাহ, আবদুর রহমানের মতো বড় নেতাদের বাস এই জেলায়।

কিন্তু এই সব নেতাদের সব টুক আলো কেড়ে নিয়েছেন একজন। তিনি হলেন মুজিবর রহমান চৌধুরী, যিনি আসলে নিক্সন চৌধুরী নামেই পরিচিত। আওয়ামী পরিবারের সন্তান। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকটাত্মীয়।

কিন্তু তিনি আওয়ামী লীগার নন। বড় ভাই নূর-ই-আলম চৌধুরী, জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ। কিন্তু নিক্সন চৌধুরী স্বতন্ত্র এমপি। ফরিদপুর-৪ আসন থেকে স্রোতের বিপরীতে লড়াই করে জিতেছেন দু’বার। ২০১৪ এবং ২০১৮’র জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি হারিয়ে দিয়েছেন আওয়ামী লীগের হেভীওয়েট নেতা, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহকে। অথচ নিক্সন চৌধুরীর বাড়িই ফরিদপুরে নয়।

কাজী জাফর উল্লাহকে কেবল নির্বাচনেই হারাননি, ফরিদপুরের রাজনীতিতেও তাকে ক্রমশ ‘রিক্ত’ করছেন নিক্সন চৌধুরী। এই তো ক’দিন আগের কথা, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে কাজী জাফর উল্লাহর মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী, নিক্সন চৌধুরী নেতৃত্ব মেনে নিলেন। সোনার নৌকা নিয়ে এসে নিক্সন চৌধুরীকে ‘নেতা’ মানলেন।

সাম্প্রতিক সময়ে ফরিদপুরে শুদ্ধি অভিযানের ফলে ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ এলাকায় যান না। বেগম সাজেদা চৌধুরী অসুস্থ। আবদুর রহমানের এলাকায় তেমন প্রভাব নেই। এ সময় ফরিদপুরের এক নেতা হয়ে ওঠা সুযোগ ছিলো কাজী জাফর উল্লাহর। কিন্তু, এক ‘বহিরাগত’ তরুণের কাছেই নাস্তানাবুদ তিনি। ফরিদপুরের রাজনীতিতে প্রভাব বাড়ছে নিক্সন চৌধুরীর। ক্রমশ গোটা ফরিদপুরেই একক নেতা হিসেবে ক্রমশ নিজেকে মেলে ধরছেন তিনি। কিভাবে?

এই প্রশ্নের উত্তর খুজতে গেলে দেখা যায়, এলাকায় তিনি বিপুল জনপ্রিয়। ফরিদপুরে এখন যারা গ্রেপ্তার হয়েছেন, যাদের বিরুদ্ধে ২ হাজার কোটি টাকা মানি লন্ডারিং এর মামলা শুরু হয়েছে, এদের বিরুদ্ধে সব সময় একাই সোচ্চার ছিলেন নিক্সন। প্রভাবশালীদের আশ্রয়ে থাকায় যখন কেউ তাদের বিরদ্ধে টু শব্দটা করতো না, তখনও তাদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে কথা বলতেন নিক্সন চৌধুরী।

তাই ফরিদপুরে শুদ্ধি অভিযানের পর, আলোচনায় নিক্সন চৌধুরী। তার নির্বাচনী এলাকার বাইরে গোটা ফরিদপুরেই এখন তার জনপ্রিয়তা বাড়ছে। বঙ্গবন্ধু পরিবারের সন্তান, জনগণের প্রতি প্রতিশ্রুতিশীল, এলাকার উন্নয়নের জন্য জনগণ তার প্রতি অনুরক্ত। আর এ জন্যই তাকে ঘিরে যে বিতর্ক তা ক্রমশ আড়াল হচ্ছে। ব্যতিক্রমী রাজনীতিবীদ হিসেবে তিনি ক্রমশ পাদপ্রদীপে আসছেন।

গুরুত্বপূর্ণ সব সংবাদ  পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

https://www.facebook.com/BangaliTimesofficel

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *