সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
পম্পেওর বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা, ইরানের পাশে পাকিস্তান!

পম্পেওর বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা, ইরানের পাশে পাকিস্তান!

পম্পেওর বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা, ইরানের পাশে পাকিস্তান!

সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আল কা’য়েদার সঙ্গে ইরানের যোগসা’জশ রয়েছে বলে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর মন্তব্যের প্রতিবাদ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেছেন, এ ধরনের অভিযোগ বিশ্বাসযোগ্য নয় এবং বিশ্ববাসী এমন অভিযোগ গ্রহণ করবে না। খবর তেহরান টাইমসের।

ইসরাইলের সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য এটি মার্কিনীদের বিপ’জ্জ’নক প্র’চেষ্টা বলেও মন্তব্য করেন ইমরান খান। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম বোল নিউজের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে ইমরান বলেন, পম্পেও নিয়ম অনুযায়ী তার

মন্ত্রিত্বের শেষ পর্যায়ে রয়েছেন এবং বর্তমান মার্কিন সরকারের মেয়াদও শেষ হয়ে এসেছে। নিঃসন্দেহে তার এই বক্তব্য ইসরাইলকে সন্তুষ্ট করার জন্য। তিনি ২০২৪ সালে নির্বাচন করতে চান। আর এভাবে তিনি ইহুদিবাদী লবির সহমর্মিতা পাওয়ার চেষ্টা করছেন।

তিনি বলেন, দু’র্ভাগ্যজ’নকভাবে ট্রাম্প প্রশাসনের পুরো পররাষ্ট্রনীতিই ছিলো ইসরাইলের সন্তুষ্টি অর্জনের বিষয়টিকে ফোকাস করে। ইমরান খান বলেন, ইরানের মতো পৃথিবীর আর কোনো দেশ এই রকম পরিস্থিতির ভেতর দিয়ে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারেনি। এ কারণেই দেশটিকে অস্থিতিশীল করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র, যেমনটা ইরাক এবং সিরিয়ায় করেছে।

গত ১২ জানুয়ারি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও ইরানকে আল কায়েদার নতুন ঘাঁটি বলে দাবি করেন। তেহরানের পৃষ্ঠপোষকতায় তারা সেখানে কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। তবে, পম্পেওর এমন অভিযোগকে মিথ্যাচার হিসেবে উল্লেখ করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ।

পম্পেও দাবি করেন, আল কায়েদা নেতা আইমান আল জাওয়াহিরির সহকারীরা বর্তমানে ইরানে অবস্থান করছেন। তবে, নিজের এমন বক্তব্যের পক্ষে কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি তিনি। পম্পেও বলেন, আল কায়েদার মূল ভূখণ্ড হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে ইরান।

তারা সেখানে আফগানিস্তানের মতো লু’কিয়ে নেই। তাদেরকে নিরাপত্তা দিচ্ছে ইরান সরকার। আমাদের অবশ্যই তাদের মোকাবিলা করতে হবে। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এমন বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করে বিবৃতি দেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ। তিনি বলেন, জেনেশুনে মিথ্যাচার করছেন পম্পেও। ইরানে আল কায়েদার কোনো ঠাঁই নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

গুরুত্বপূর্ণ সব সংবাদ  পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

https://www.facebook.com/BangaliTimesofficel

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *