ম্রক্ষ্যং ঝিরি(বড়ঝিরি), কচ্ছপতলি, বান্দরবান।

ম্রক্ষ্যং ঝিরি(বড়ঝিরি), কচ্ছপতলি, বান্দরবান।
যারা নির্জোন ও প্লাস্টিকমুক্ত প্লেস খুঁজছেন তারা সময় করে এখানে ঘুরে আসতে পারেন। দেবতাখুম ঘুরে ২৪জনের মধ্যে ৩জন রয়ে গেলাম কচ্ছপতলি বাজারে। বাকিরা তাদের অফিস থাকায় ঢাকায় বেক করে। মাথায় চড়ে বসলো আশেপাশের নতুন কোনো প্লেস এক্সপ্লোর করার। যেমন ভাবনা তেমন কাজ, সকালে ঘুম থেকে উঠেই কটেজ মালিক ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানতে পারি ম্রক্ষ্যং ঝিরির কথা, যাকে স্থানীয়রা বড়ঝিরি নামে ডাকে।

সেখানে খুম কম মানুষের পদচারণা থাকায়, কেউই তত ভালোভাবে চিনে না। আমরা খুব খোঁজাখুঁজির পর একজন গাইড খুঁজে পাই, যিনি আমাদের সেখানে নিয়ে যেতে পারবেন। হালকা শুকনো খাবার নিয়ে কচ্ছপতলি আর্মি ক্যাম্পের পিছনের রাস্তা দিয়ে হাটা শুরু করলাম। যতই ভেতরে প্রবেশ করছি প্রকৃতি ততই নির্জোন হতে শুরু করলো। কোথাও কেউ নেই, আমরা ৪ জন ছাড়া। পাহাড়ি রাস্তা, ঝিরিপথ পার হয়ে যতই সামনে আগাবেন, আপনি ততটাই মুগ্ধ হবেন।

মাঝে মাঝে পাহাড় আর সবুজ গাছপালার ফাঁক দিয়ে সূর্য মামার দেখা মেলে, শুনতে পাবেন হরেক রকম পাখির ডাক। আবার কোথাও গিরিখাতের মধ্যে জমে আছে ঠান্ডা স্বচ্ছ জল। এই ট্রেইলটি পুরো কমপ্লিট করে বেক আসতে আমাদের সময় লেগেছিল পাঁচ ঘন্টার মত। সবগুলো ছবি দেখার অনুরোধ রইলো, তাহলে বুঝতে পারবেন প্লেসটা কতটা সুন্দর!!

বিঃদ্র- ঘুরতে গিয়ে যেখানে সেখানে ময়লা না ফেলি। প্রকৃতিকে তার মতই থাকতে দিলে প্রকৃতিও সুন্দর থাকবে আর আমরাও ঘুরে আনন্দ পাবো।
হ্যাপি ট্রাভেলিং😍🤩

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

চা বাগান!

Wed Mar 31 , 2021
কথাটা মস্তিস্কে এলেই কল্পনায় ভেসে ওঠে মাইলের পর মাইল বিস্তৃত সবুজের চাদরে ঘেরা একটা দৃশ্য।কি সুন্দর দেখতে!মুহুর্তেই সকল ক্লান্তি মুছে সতেজ করে দেয় আমাদের মন। কিন্তু এই সবুজের চাদরের পেছনের মূল মানুষ গুলো সম্পর্কে,দিনরাত অক্লান্ত পরশ্রম করা বাগানীদের সম্পর্কে আমরা ঠিক কতটুক জানি?কিংবা আদৌ কি জানি? এই প্রশ্নটা মনে বিধছিলো […]
চা বাগান!