মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:২৭ পূর্বাহ্ন

পালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী, আরও এক জেলা তালেবানের দখলে!

পালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী, আরও এক জেলা তালেবানের দখলে!

পালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী, আরও এক জেলা তালেবানের দখলে!

আফ’গানি’স্তানের আরও একটি জেলা দখলে নিয়েছে তা”লেবা’ন। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা কুনার প্রদেশের নরি জেলা থেকে সরে গেলে তার নিয়ন্ত্রণ চলে যায় সশ’স্ত্র গোষ্ঠীটির হাতে। এ ছাড়া কাপসিয়া প্রদেশের নিজরাব জেলায় চলছে তুমুল সং’ঘ’র্ষ। আফগানিস্তানের গণমাধ্যম টোলো নিউজ এসব তথ্য জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়, রোববার ল’ড়াই চলাকালে কুনার প্রদেশে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা অ’স্ত্র সরবরাহ না থাকায় সরে যায়। এর পর তা দখলে নেয় তা’লেবা’ন। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন জায়গায় তালেবানের সঙ্গে লড়াই চলছে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের। কুনার প্রদেশের সংসদ সদস্য জাওয়াদ শাফি বলেন, নরি জেলার দখলে তা’লেবা’নকে কোনো প্রতিরোধের মুখে পড়তে হয়নি। বলতে গেলে বিনা প্রতিরোধে তারা জেলাটি দখলে নিয়েছে।

এটা নিরাপত্তা বাহিনীর নেতৃত্বের দুর্বলতা প্রকাশ করে। নিরাপত্তা বাহিনীর সূত্র জানায়, কুন্দুজ প্রদেশের চাহার দারা, পারওয়ান প্রদেশের চারিকার শহর, সামানগান প্রদেশসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় তা’লেবা’নের সঙ্গে তীব্র লড়া’ই হচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের। পারওয়ান প্রদেশের গভর্নর ফজলুদ্দিন আয়ার বলেন, তা’লেবা’ন অ’স্ত্র এবং আ’হ’তের ঘট’নাস্থলে ফে’লে গেছে। তাদের হা’ম’লা ব্যর্থ করে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে তখর প্রদেশের ১৬ জেলা তা’লে’বানের দখলে চলে গেছে দুই সপ্তাহ আগে। প্রদেশের রাজধানী তালুকানে এখনও তী’ব্র ল’ড়াই চলছে। দেশটির প্রতিরক্ষা বাহিনী জানিয়েছে, যেসব এলাকার দখল তা’লেবা’ন নিয়েছে তা পুনরুদ্ধারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। রোববার থেকে আগের ২৪ ঘণ্টার ল’ড়াইয়ে তালেবানের ১৭০ জন নি’হ’ত হ’য়েছে।

যদিও প্রতিরক্ষা বাহিনীর দেওয়া তথ্য প্রত্যাখ্যান করেছে তালেবান। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ফাওয়াদ আমান বলেন, আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী সদস্যরা ভালো অবস্থানে রয়েছেন। তা’লেবা’নের দখল থাকা জেলার সংখ্যা ধীরে ধীরে কমে আসবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহার প্রক্রিয়ার মধ্যে তালেবানে আফগানিস্তানের দুশর বেশি জেলা দখলে নিয়েছে। এ ছাড়া দখলে নিয়েছে গুরুত্বপূর্ণ স্থলবন্দর, সীমান্তবর্তী জেলা। এখনও দেশের অসংখ্য জেলায় তারা লড়ছে নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে। একই সঙ্গে তালেবান রয়েছে আলোচনার টেবিলেও।

গুরুত্বপূর্ণ সব সংবাদ  পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

https://www.facebook.com/BangaliTimesofficel

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 Bangalitimes.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com